হলমার্ক চেয়ারম্যানের তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড

সম্পদের বিবরণী জমা না দেওয়ার অভিযোগে দুদকের দায়ের করা মামলায় হলমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলামকে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদলত। একইসঙ্গে ২০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আগামী ৬০ দিনের মধ্যে এই অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। বুধবার (১১ জুলাই) দুপুর আড়াইটার দিকে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ডক্টর আক্তারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন জেসমিন ইসলাম।

রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের আইনজীবী মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, ‘দুনীতি দমন কমিশন আইন-২০০৪ এর ২৬ (২) ধারায় জেসমিন ইসলামকে একমাত্র আসামি করে তার বিরুদ্ধে গত ২০১৬ সালে ২ ফেব্রুয়ারি অভিযোগ গঠন করা হয়। আদালত ছয় জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করে এ রায় দেন।’ মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়— ২০১৩ সালের ১৩ নভেম্বর হলমার্কের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলামকে ৭ দিনের মধ্যে সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিল করতে নির্দেশ দেয় দুদক। দুদকের নোটিস পেয়ে আসামি জেসমিন তার আইনজীবী আফাজুল হকের মাধ্যমে সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিলের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য আবেদন করেন। দুদক আরও ৭ দিন সময় বাড়িয়ে দেন। কিন্তু এর পরও জেসমিন আদালতে সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিল না করায় দুদকের উপসহকারীপরিচালক মুহাম্মদ জয়নাল আবেদিন ঢাকার রমনা থানায় বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে গত ২০১৪ সালের ১৬ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক মো. মঞ্জুর মোর্শেদ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

SHARE

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here