যে কারণে নতুন কোনো ছবিতে নেই দীপিকা

দীপিকা পাড়ুকোন এখন বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকাদের মধ্যে অন্যতম। শুধু জনপ্রিয়তা নন, সাফল্যের দিক থেকেও তাঁর অবস্থান শীর্ষে। গত মাসে টাইম ম্যাগাজিনের এক জরিপে বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালীর তালিকায় উঠে আসে দীপিকার নাম। বিশ্বের শীর্ষ দশ পারিশ্রমিক নেওয়া অভিনেত্রীদের মধ্যেও তিনি একজন। ভক্তদের মধ্যে এত চাহিদা থাকা সত্ত্বেও এই নায়িকার নতুন কোনো ছবির খবর নেই। এর কারণ কী?

অনেক ঝুটঝামেলা কাটিয়ে এ বছর দীপিকার ‘পদ্মাবত’ ছবিটি মুক্তি পায়। সঞ্জয় লীলা বানসালি পরিচালিত এই ছবি মুক্তি পায় গত ২৫ জানুয়ারি। এরপর বিশাল ভরদ্বাজের ‘স্বপ্না দিদি’ ছবিতে কাজ করার কথা ছিল দীপিকার। এই চলচ্চিত্রের জন্য দীপিকাকে চুক্তিবদ্ধ করা হয়। কিন্তু ছবির আরেক শিল্পী ইরফান খানের অসুস্থতার কারণে শুটিং আপাতত স্থগিত আছে। আর দীপিকার সঙ্গে আলোচনা করেই বিশাল এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বিশাল তখন টুইটারে লিখেছিলেন, ‘ইরফান একজন যোদ্ধা। আমরা জানি, তিনি এই যুদ্ধ জিতেই ফিরবেন। এ জন্য দীপিকা পাড়ুকোন, ছবির প্রযোজক প্রেরণা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রিআর্জ এবং আমি ছবির কাজের নতুন শিডিউল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এটি আমরা শুরু করব নতুন উদ্যমের সঙ্গে, যখন আমাদের যোদ্ধা (ইরফান খান) জয়ী হয়ে আমাদের মধ্যে ফিরবেন।’

‘পদ্মাবত’ ছবির দৃশ্যে দীপিকা পাড়ুকোনকিন্তু ইরফান যে শিগগিরই শুটিংয়ে ফিরতে পারবেন না, সেটা তো স্পষ্ট। তাহলে কেন নতুন কোনো কাজ হাতে নিচ্ছেন না দীপিকা? নাকি কাজই দীপিকার কাছে ধরা দিচ্ছে না? অনেক চিন্তাভাবনা করে এর দুটি সমীকরণ বের করেছেন অনেকে। এদের মধ্যে একটি দল ভাবছে, দীপিকা ‘পদ্মাবত’-এর শুটিং করতে গিয়ে ঘাড়ে যে ব্যথা পেয়েছিলেন, সেটি তাঁকে ভোগাচ্ছে। এ কারণে হয়তো নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন না।

কিন্তু খবর পাওয়া গেছে, দীপিকা সেই চোট থেকে অনেকটাই সেরে উঠেছেন। চাইলেই তিনি নতুন কোনো কাজে হাত দিতে পারেন। এদিকে অন্য আরেক দলের সন্দেহ প্রেমিক রণবীর কাপুরের সঙ্গে দ্রুত বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন দীপিকা। সেই প্রস্তুতি নিতেই কাজকর্ম থেকে দূরে আছেন। তবে, এই সন্দেহেরও কোনো শক্ত ভিত্তি পাওয়া যায়নি।

‘পদ্মাবত’ ছবির আগে দীপিকার শেষ হিন্দি ছবি ‘বাজিরাও মাস্তানি’। সেটি মুক্তি পায় ২০১৫ সালে। ২০১৭ সালে তাঁর প্রথম হলিউড চলচ্চিত্র ‘ট্রিপল এক্স: দ্য রিটার্ন অব জেন্ডার কেজ’ দেখতে পান দর্শক। এরপরের বছর ‘পদ্মাবত’। এখন পর্যন্ত তাঁর নতুন কোনো ছবিতে কাজের খবর নেই।

‘পিকু’ ছবিতে দীপিকার পারিশ্রমিক ছিল অমিতাভ বচ্চনের চেয়ে বেশিএর প্রকৃত কারণ সম্প্রতি জানা গেছে। বলিউডে কানাঘুষা চলছে, চড়া পারিশ্রমিক হাঁকানোর জন্যই নাকি কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হতে পারছেন না দীপিকা। এই নায়িকা ‘পদ্মাবত’ ছবিতে নায়ক রণবীর কাপুরের চেয়েও চার কোটি রুপি বেশি পারিশ্রমিক পেয়েছেন। এর আগে ‘পিকু’ ছবিতে অমিতাভ বচ্চনের চেয়ে দীপিকার পারিশ্রমিক ছিল বেশি। নিজের দাম ধরে রাখতে দীপিকা যে পারিশ্রমিক চাইছেন, নির্মাতারা তাঁকে তা দিতে রাজি নন। আর ব্যাটে-বলে না মেলাতেই নতুন ছবিতে সই করছেন না এই নায়িকা।

এমনকি যশ রাজ ও ধর্ম প্রডাকশনের বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলোও নাকি দীপিকার চাহিদা অনুযায়ী পারিশ্রমিক দিতে প্রস্তুত নয়। বলিউডে নায়ক-নায়িকাদের পারিশ্রমিক বৈষম্য নিয়ে এর আগেও বহুবার কথা উঠেছে। দীপিকা ছাড়াও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সোনম কাপুরসহ অনেকে এ নিয়ে অনেক বাক্য ব্যয় করেছেন। কিন্তু বলিউড শেষমেশ নায়কদেরই বেশি প্রাধান্য দিয়ে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে দীপিকা এক অনন্য উদাহরণ প্রতিষ্ঠার চেষ্টায় আছেন। এই চেষ্টায় কয়েকবার সফলও হয়েছেন এ অভিনেত্রী। আর তাই ছবির সংখ্যা নিয়ে না ভেবে নিজের পরিশ্রমের সঠিক মূল্যায়নেই বেশি মনোযোগী তিনি। বলিউড বাবল

SHARE

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here