বিশ্বের তৃতীয় দামি খেলোয়াড় কৌতিনহো এখন বার্সার

‘অবশেষে ফুরাল ছয় মাসের দীর্ঘ সাধনা!’ ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনা চাইলেই কাতালান ভাষায় তাদের ফেসবুক পাতায় লিখে দিতে পারে এমনটা। গত বছরের আগস্টে নেইমার পিএসজিতে পাড়ি জমানোর পর বিকল্প পেতে হন্যে হয়ে যাকে দলের টানার চেষ্টায় বারবার ব্যর্থ হৃদয়ে ফিরেছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা, অবশেষে সেই ফিলিপে কৌতিনহোকে লিভারপুল থেকে ছিনিয়ে নিয়েই ক্ষান্ত দিল দলটি। ১৬০ মিলিয়ন ইউরোতে বিশ্বের তৃতীয় দামি ফুটবলার হয়ে ন্যু ক্যাম্পে পা ফেলছেন ২৫ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। চুক্তিটা সাড়ে পাঁচ বছরের।

বার্সেলোনার সঙ্গে এ চুক্তিতে দলবদলের নতুন ব্রিটিশ রেকর্ড গড়ল লিভারপুল। আগে এত দামে ইংলিশ ক্লাব থেকে অন্য লিগগুলোতে যাননি কোন ফুটবলার। রেকর্ড হয়েছে বার্সারও। স্প্যানিশ লিগে সবচেয়ে বেশি দামে কোন খেলোয়াড় কেনার রেকর্ড এখন তাদেরই। বাংলাদেশ সময় শনিবার মধ্যরাতে হয়ে গেল রেকর্ডটি।

কৌতিনহোর চেয়ে দামের দিক থেকে এগিয়ে আছেন যে দুজন, উভয়ই খেলেন পিএসজিতে। বার্সা থেকে নেইমারকে কিনতে ফরাসি জায়ান্টদের গুনতে হয়েছে ২২২ মিলিয়ন ইউরো। আর ধারের নামে মোনাকো থেকে কাইলিয়ান এমবাপেকে আনতে ক্লাবটির খরচ ১৮০ মিলিয়ন ইউরো।

ইংলিশ সংবাদ মাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, কয়েকঘণ্টার মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে কৌতিনহোকে দলের টানার বিষয়টি ঘোষণা করবেন বার্সা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তেমেউ। সব ঠিকঠাক থাকলে রোববার ন্যু ক্যাম্পে বসে লেভান্তের বিপক্ষে মেসি-সুয়ারেজদের খেলা দেখবেন তিনি। সোমবার নামতে পারেন নতুন সতীর্থদের সঙ্গে প্রথম অনুশীলনে। আর বৃহস্পতিবার সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে কোপা ডেল রের দ্বিতীয় লেগেই বার্সার জার্সি গায়ে অভিষেক হয়ে যেতে পারে।

কৌতিনহোর জন্য লিভারপুলের হাঁকানো ১৬০ মিলিয়ন ইউরোর পুরোটাই একহাতে পরিশোধ করতে হবে বার্সাকে। যার মধ্যে ১২০ মিলিয়ন ইউরো প্রকৃত মূল্য এবং বাকি ৪০ মিলিয়ন আনুষাঙ্গিক।

এর আগে গত আগস্ট থেকে কৌতিনহোর জন্য পাঁচবারের বেশি দর হাঁকিয়ে ব্যর্থ মনোরথে ফিরতে হয় কাতালানদের। কিন্তু ব্রাজিলিয়ান তারকার ইচ্ছা এবং তার এজেন্ট কিয়া জুরাবচিয়ানের এক প্রকার জোরাজুরিতেই রাজি হয়েছে অলরেডরা।

অবশ্য কৌতিনহোকে ছাড়ার আগে সমস্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা সেরেই তার দলবদলে সম্মতি দিয়েছেন কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। কৌতিনহোবিহীন এগারো ম্যাচে কেবল একটিতে হার ১৮বার ইংলিশ সেরা দলটির। দলে আছেন মোহাম্মদ সালাহ, আরেক ব্রাজিলিয়ান ফিরমিনো, সাদিও মানের মত পরীক্ষিত খেলোয়াড়। আবার চলতি শীতকালীন দলবদলে ৭৫ মিলিয়ন ইউরোতে অ্যানফিল্ডে এসেছেন ভার্জিল ফন ডিক।

সঙ্গে কৌতিনহোর বিকল্পও ঠিক করে ফেলেছে লিভারপুল। লেস্টার সিটির আলজেরিয়ান ফরোয়ার্ড রিয়াদ মাহরেজের দিকেই রাডার ঘুরিয়েছে দলটি।

২০১৩ সালের জানুয়ারিতে ইন্টার মিলান থেকে লিভারপুলে নাম লেখান কৌতিনহো। তখন তার দল পরিবর্তনের খরচ ছিল মাত্র ৮.৫ মিলিয়ন পাউন্ড। লিভারপুল তাকে বেঁচে তাই অ্যাকাউন্ট ফুলে ফেঁপেই তুলল। সর্বশেষ মৌসুমে ১৪ গোলসহ লিভারপুলের জার্সিতে ১৮১ ম্যাচে ৪২ গোল রেখে আসছেন এই ব্রাজিলিয়ান।

SHARE

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here