তিন সিটি নির্বাচনে বিশৃঙ্খলার সম্ভাবনা নেই

কাশিনাথপুরে নবনির্মিত ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, তিন সিটি নির্বাচনে বিশৃঙ্খলার সম্ভাবনা নেই। যারা এসব রটাচ্ছেন তারা প্রপাগণ্ডা চালাচ্ছে।

রোববার বিকালে সাঁথিয়া কলেজ মাঠে এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।এর আগে দুপুরে পাবনার বেড়া, সাঁথিয়া এবং সুজানগর উপজেলার মিলনকেন্দ্র কাশিনাথপুরে নবনির্মিত ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে দেশে এখন আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি ভাল। প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনায় দেশ থেকে জঙ্গি এবং সন্ত্রাস নির্মূল করা হয়েছে। একইভাবে তিনি মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সারা দেশে মাদকের বিরুদ্ধে আইন-শৃংখলা বাহিনীর অভিযান চলছে এবং মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। এই অভিযানে জনগণকে সহযোগিতা করতে হবে এবং জনগণের সহযোগিতায় দেশ থেকে মাদক নির্মূল করা সম্ভব হবে বলে তিনি জানান।

এসময় সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও পাবনা-১ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি এম খুরশিদ হোসেন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহমেদ খান, পাবনার জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, পাবনার পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির, সিরাজগজ্ঞের পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমেদ, বেড়া পৌরসভার মেয়র আবদুল বাতেন, বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল কাদের, সাবেক ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান, প্রকল্প পরিচালক আতাউল হক, গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদুল আলম, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পাবনার সহকারী পরিচালক সাইফুল ইসলাম, বেড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুল আজিজ খান, সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলমসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ স্টেশনটি নির্মাণে ১ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানান।

প্রসঙ্গত, সোমবার বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। এই তিন নগরে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণে এরইমধ্যে সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। তিন নগরীতে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নানা তৎপরতা চালাচ্ছে।

এছাড়াও সাদা পোশাকের গোয়েন্দাদের নজরদারীতে আনা হয়েছে গুরুত্বপূর্ণ সব এলাকা। এর আগে শনিবার মধ্যরাতে তিন সিটিতে শেষ হয় আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা।

SHARE